বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

কত টাকা আয় করেছে ভারতীয় চলচ্চিত্র “ওয়ার”??

২০১৯ সালে ২ অক্টোবর মুক্তি পায় দুই সুপারস্টারের  সিনেমা ওয়ার। চলচ্চিত্রের অবিনেতা ছিলেন হ্রিথিক রশান ও টাইগার শ্রফ অভিনেত্রী ছিলেন বানী কাপুর। চলচ্চিত্রের পরিচালক হলো  সিদ্ধার্থ আনন্দ ও প্রযোজক আদিত্য চপড়া এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যশরাজ ফিল্মস। মুক্তির প্রথম দিনেই বক্স অফিস কাঁপিয়েছে ‘ওয়্যার’। এক দিনেই আয় করেছে ৫৩ কোটি ৩৫ লাখ রুপি।  সোমবারের মধ্যেই ব্যবসা ছুঁয়েছে প্রায় ১৮০ কোটি রূপি। এই প্রথম হৃতিক রোশন অভিনীত কোন ছবি প্রথম দিনে এই পরিমাণ অর্থ আয় করলো। সবশেষ ২০১৪ সালে তার ‘ব্যাং ব্যাং’ ছবিটি একদিনে এটি আয় করেছিল ২৭ কোটি রুপি। অভিনেতা টাইগার শ্রফ তার ‘বাঘি টু’ সিনেমার রেকোর্ড ভেঙেছেন এই ছবির মাধ্যমে। তার অভিনীত ‘বাঘি টু’র প্রথম দিনের আয় ছিলো ২৫ কোটি রুপি। এবছরের বেশ কিছু বক্স অফিস ব্লকবাস্টার ছবিকে পিছনে ফেলে দিয়েছে হৃত্বিক ও টাইগারের ওয়ার। সে তালিকায় নাম রয়েছে কেসরি, টোটাল ধামাল, সাহো, ছিছোরে, সুপার ৩০ এবং গল্লি বয়। এগুলো হলো-ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে প্রথম দিনে সবচেয়ে বেশি উপার্জন করা ছবি ‘ওয়ার’   চলচ্চিত্র টি বাজেট ছিল ১৫০ কোটি । বিশ্বে আয় করেছে ৪৭৫ কোটি।

Related image

 

ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ছুটির দিনে এখনও পর্যন্ত যতো ছবি মুক্তি পেয়েছে তার মধ্যে ‘ওয়ার’ প্রথম যা বক্স অফিসে প্রথম দিনে অর্ধশত কোটি রুপি আয় করেছে। সিনেমাতে কবির ও খালেদ দুইটি প্রধান চরিত্র। দুজনই ভারতের খুফিয়া এজেন্সির মেন্টর। কবির একজন সত্যিকারের দেশপ্রেমিক যে তার দেশের জন্য সব করতে পারে। বিভিন্ন রকম রূপ পরিবর্তন করে সন্ত্রাস দের ধরে। আর অন্যদিকে খালিদ যে সৎ ভাবে দেশের জন্য কাজ করে। চলচ্চিত্রে দুইটি গান ও একটি থিম গান আছে

Related image

 

সারসংক্ষেপ ; কবির  হল  ইন্ডিয়ার ইন্টেলিজেন্স এজেন্সীর মেন্টর। খালিদ এর বাবা সেই এজেন্সীর ছিল কিন্তু দেশদ্রোহী নাম করে তাকে খারিজ করা হয়। খালিদ তার মার জন্য সেই এজেন্সী সদস্য হতে চায়। কিন্তু কবির প্রথমে রাজি না হলে পরে রাজি হয়। ইন্ডিয়া ইন্টেলিজেন্স এজেন্সি ইলিয়াসীকে ধরার জন্যে কবির ও তার টিম বের হয় । ইলিয়াসী ইন্ডিয়ার সবচেয়ে বড় শত্রু। কবির ও তার টিম ইলিয়াসী ধরতেই যায় এমন সময় তাদের দলের সৌরব নামে ব্যাক্তি বেইমানি করে এবং চলে যায় যার কারণে কবির ইলিয়াসী এজেন্সীর কাউকে ধরতে পারে না। সৌরভকে ধরতে খালিদ চলে যায়। এরপর দেখায় কবির তার দেশের জন্য ইলিয়াসকে ধরতে অন্য পথে চলে যায় ৬ মাস পর দেখায় কবিরকে দেশদ্রোহী ঘোষিত করা হয়। তারই মধ্যে নাইনা নামে এক মেয়ের সাথে তার সম্পর্ক হয়। নাইনার ৫ বছরের মেয়ে ও ছিল। নাইনা মারা গেলে তার মেয়েকে কবির রাখে। পরে কবির বুঝতে পারে তার এজেন্সিতে কেও তাদের সাহায্য করছে এবং তাদের ক্ষুফিয়া নাম থাকে ঘোড়া, হাতি, বাজির, পেয়েদা। কবির তাদের এজেন্সির গোড়া, হাতি, বাজিরকে মেরে ফেলে কিন্তু শেষে পেয়েদাকে ছাড়া। পেয়েদা ছিল খালিদ । খালিদ হলো সৌরব যখন সৌরভকে ধরতে খালিদ যায় সৌরব তখন খালিদকে মেরে ফেলে। ইলিয়াস তখন সৌরবের চেহারা প্লাস্টিক সার্জারি করে খালিদের চেহারা র মত তৈরী করে। শেষে সৌরব আর খালিদের মারামারি পর শেষ হয় তাদের যুদ্ধ। খালিদ অর্থাৎ সৌরব মারা যায়।

Related image

ওয়ার চলচ্চিত্রের পরিচালক  সিদ্ধার্থ আনন্দ এর ব্যাং ব্যাং’, ‘আঞ্জানা আঞ্জানি’, ‘বাচনা অ্যায় হাসিনো’, ‘তা রা রাম পাম’ ও ‘সালাম নামাস্তে’ ছবি গুলো থেকে কিন্তু ‘ওয়ার’র প্রথম দিনের আয় তার সবচেয়ে বেশি সফল ছবি হতে যাচ্ছে। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যশরাজ ফিল্মসের প্রযোজিত ছবিগুলোর মধ্যে প্রথম দিনের আয়ের দিক থেকে সেরা ‘ওয়ার’। যশরাজ ফিল্মসের প্রযোজিত ‘থাগস অব হিন্দোস্তান’ সিনেমার রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন হৃত্বিক ও টাইগারের ওয়ার।    গান্ধি জয়ন্তীতে আগেও অনেক ছবি মুক্তি পেয়েছে কিন্তু বাজিমাত করেছে ‘ওয়ার’। ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে আসল ছবি হিসেবে বক্স অফিসে প্রথম দিনে সবচেয়ে বেশি আয় করলো ‘ওয়ার’ ছবিটি।

Related image

 

 

তারকালয়/১৩/১২/১৯ রিয়া

Previous ArticleNext Article