বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

কত টাকা আয় করেছে স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি??

স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি ভারতীয় একটি নাট্যধর্মীয়  চলচ্চিত্র, যার পরিচালক রেমো ডি সুজা এবং এতে অভিনয় করেছেন বরুণ ধবন ও শ্রদ্ধা কাপুর। স্ট্রিটডান্সার থ্রিডি ছবির গল্প মানেই মঞ্চে নাচের প্রতিযোগিতা। ২০২০ সালের ২৪ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। ছবিতে প্রধান চরিত্র হল বরুণ ধবন – সাহেজ মুকুন্দ, শ্রদ্ধা কাপুর -ইনায়ত, প্রভূ দেবা – বিষ্ণ ,নোরা ফাতেহি-মিয়া। এ ছবিটি এনি বডি ক্যান ডান্স সিরিজির তৃতীয় কিস্তি। সিরিজে দুটি ছবি সুপারহিট হওয়ায় পরিচালক নতুন এ কিস্তিটি নির্মাণ করেছেন।
Related image

চলচ্চিত্রটির প্রথম ধাপের চিত্রগ্রহণ হয় পাঞ্জাবে। এরপর দ্বিতীয় ধাপের চিত্রগ্রহণ হয় লন্ডনে।  ছবিটি পরিচালনা করেছেন রেমো ডি সুজা ও প্রযোজনা করেছে টি- সিরিজ। প্রথম সপ্তাহের শেষেই ছবিটি আয় করে ৫০ কোটি টাকা। ফলে সমালোচকদের অনুমান এই ছবি বক্স অফিসে ভালো ফল করতে চলেছে। কিন্তু বর্তমানে সফলতা বার্থ কারণ দুই সপ্তাহে ছবিটি আয় করেছে ৯৮.০২ কোটি টাকা।

প্রথমে ইউটুবে ছবিটির ট্রেলার প্রকাশ পাওয়া পর  দর্শকের কাছে প্রশংসা পায়। মুক্তির আগেই ছবিটি নিয়ে দর্শক আগ্রহ তুঙ্গ।এই ছবিতেও বরুন ধাওয়ানের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন শ্রদ্ধা কাপুর।  অভিনয়ের ক্ষেত্রে নজর কাড়লেন বরুণ ধাওয়ান ও শ্রদ্ধা কাপুর। এই জুটিকে এর আগেও একই সঙ্গে পেয়েছে দর্শকেরা।

Image result for স্ট্রিট ডান্সার থ্রিডি

ট্রেলার দেখেই অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুরের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ভক্তরা। ছবিতে নাচের দৃশ্য করতে গিয়ে পায়ে শ্রদ্ধা গুরুতর চোট পান। এর আগে এবিসিডি টুতেও নিজেকে প্রমাণ করেছিলেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। আর এই ছবিতে প্রভু দেবাকে তাঁর নিজস্ব আইটেম নম্বর মুকাবলা গানে নাচতে দেখা যায়। যেটি হিট গানের তালিকায় আছে। ছবির সবকটি গানই দর্শকের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়।

কাহিনী সংক্ষেপে;  দু’‌টি নাচের দল ভারত ও পাকিস্তান। যারা সবসময়ই নিজেদের মধ্যে লড়াই করে চলেছে। সাহেজের ভূমিকায় বরুণ ধাওয়ান, যিনি ভারতীয় নাচের দলের মাথা, শ্রদ্ধা কাপুর এই ছবিতে পাকিস্তানের নাচের দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, নাম ইনায়ত। প্রভু দেবার রেস্তোরাঁতে এই দুই দলই প্রায়ই আসে। এখানে ভারত–পাকিস্তান ক্রিকেট নিয়ে তরজাও যেমন চলে তেমনি দুই দলের মধ্যে চলে নাচের চ্যালেঞ্জও। এই গল্পের পাশে আরও একটি বিষয়কে দেখানো হয়, যা হল অঐধ অভিবাসীদের সমস্যা।

Image result for স্ট্রিট ডান্সার থ্রিডি

যাঁরা লন্ডনে তাঁদের বড় স্বপ্নকে নিয়ে আসেন কিন্তু টানেলের মধ্যে নিজেদের লুকিয়ে, ক্ষুধার্ত ও আশ্রয়হীন হয়ে তাঁদের স্বপ্নকে মরে যেতে হয়। ইনায়ত তেমনই বেশ কিছুজনকে সাহায্য করেন এবং সাহেজ নিজের ভুল বুঝতে পারেন। এরপর দুই দলই নাচের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। দুই দেশের মধ্যে নাচের প্রতিযোগিতাতে মেতে থাকা প্রতিযোগীরা কীভাবে পরবর্তীতে একে অন্যের পরিপূরক হয়ে উঠলেন সেই গল্পই ফুঁটে উঠল এই ছবি দিয়ে।
Related image
তারকালয়/১০/০২/২০২০ রিয়া

Previous ArticleNext Article