Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

চিরো বিদায় নিলেন দিলীপ কুমার

পাকিস্তানি অধিবাসী হয়েও ইন্ডিয়াতে পারি জমান তিনি।কিন্তু এই যাত্রা শুরু টা ভিন্নতর ছিল। কেননা তিনি বাবার সাথে ঝগড়া করে পাকিস্তানের পেশোয়ারের বাড়ি ছেড়ে মুম্বইতে পারি জমান জনপ্রিয় অভিনেতা দিলীপ কুমার । ১৯২২ সালের ১১ ডিসেম্বর পেশোয়ারের সুনাম ধন্য মুসলিম পরিবারে মহম্মদ ইউসুফ খান নামে জন্মগ্রহণ করেন দিলীপ কুমার। অভিনেত্রী দেবিকা রানীর সাথে এক যাত্রায় প্রথম ছবি মুক্তির আগেই নাম পরিবর্তন করেন দিলীপ কুমার। সেই মর্মে অভিনেতার প্রয়াণে শোকবার্তা ব্যাক্ত করেছে পাকিস্তান ।

tarokaloy_dilip_kumar

পাঁচ দশকেরও বেশি সময় যাবত বলিউডে নিজের স্থান ধরে রেখেছেন। বলি পাড়ায় একসময় দিলীপ কুমার এবং সায়রা বানুর প্রেম বেশ আলোচিত বিষয় ছিল। মধুবালার সঙ্গে তার প্রেম পরিণতি না পেলেও,সায়রা বানু সাথে ভালোবাসার ঘর বাঁধেন তিনি। ১৯৬৬ সালে ২২ বছরের ছোট সায়রা বানুকে বিয়ে করেন মুহম্মদ ইউসুফ খান ওরফে দিলীপ কুমার। তবে তাদের কোনো সন্তান ছিল না তাঁরা নিঃসন্তান ছিলেন। জানা যায়, বাবা না হতে পারার একটা হতাশা অভিনেতার মধ্যে সারাজীবনই কেটেছে। তবে অনেকেই হয়ত অবগত নন, বলিউড বাদশা শাহরুখ খানকে সন্তানের মতোই দেখতেন কিংবদন্তি অভিনেতা ও সায়রা বানু। বলা যায় শাহরুখ ছিলেন দিলীপ সাবের ‘মু বোলা বেটা’।

tarokaloy_dilip_kumar_and_shahrukh_khan

দুবছর আগে দিলীপ কুমার হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান । সেসময় শাহরুখ মেয়ে সুহানাকে নিয়ে দিলীপ কুমারের বাড়িতে যান। এক সাক্ষাৎকারে শাহরুখের সঙ্গে দেখা হওয়ার কথা শেয়ার করেছিলেন সায়রা বানু। তিনি বলেন, হেমা মালিনী পরিচালিত ‘দিল আশনা হ্যায়’ ছবির মহরতে গিয়েছিলেন তিনি আর দিলীপ কুমার। যে ছবিতে শাহরুখের কাজ করার কথা ছিল। তখনই কিং খানের সঙ্গে দিলীপ কুমারের প্রথম আলাপ হয়। সে অভিজ্ঞতা শেয়ার করে নিয়ে সায়রা বানু বলেন, ”আমি সবসময়ই বলি, আমাদের যদি ছেলে সন্তান থাকত, তাহলে সে দেখতে শাহরুখের মতোই হত। শাহরুখ ও দিলীপ সাবের চুল এক দম একই রকম। আমি ওর (শাহরুখ) চুলে হাত বুলিয়ে দিয়েছিলাম। পরের বার আবার যখন শাহরুখের সঙ্গে আমাদের দেখা হয় ও তখন জিজ্ঞাসা করেছিল, আজ আপনি আমার চুলে হাত বুলিয়ে দেবেন না? ওর কথা শুনে আমি খুব খুশি হয়েছিলাম।”

tarokaloy_dilip_kumar_and_shahrukh_khan

প্রসঙ্গত,আজ বুধবার সকালে মুম্বইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন দিলীপ কুমার। শ্বাসকষ্টের সমস্যা হওয়ায় গত বুধবার সেখানে ভর্তি করা হয় তাঁকে। বর্ষীয়ান অভিনেতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শোকজ্ঞাপন করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। আজ বিকেল পাঁচটায় তার চিরো বিদায় সম্পন্ন হয়।

tarokaloy_dilip_kumar_and_amitabh_bachchan

প্রয়াত এই অভিনেতার বয়স হয়েছিল ৯৮ বছর। বুধবার সকালে অভিনেতার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা চলচ্চিত্রজগৎ। টুইটারে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন । ক্যাপশনে লেখেন, চলচ্চিত্রের একটা প্রতিষ্ঠান চলে গেল। ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসের চিরস্মরণীয় পর্যায় হয়ে থাকবেন দিলীপ কুমার। তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা। ভগবান ওঁদের শক্তি দান করুন। ওঁর আত্মার চিরশান্তি কামনা করি। গভীরভাবে শোকাহত। আরও একটি টুইটে অমিতাভ লেখেন, স্বর্ণযুগের পর্দা নামল। আর জীবনে যা হবে না।

Previous ArticleNext Article