বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

বিশ্বের উদীয়মান ফুটবলার,নেইমার জুনিয়র

আধুনিক বিশ্বের উদীয়মান ফুটবলারদের মধ্যে অন্যতম নাম হচ্ছে নেইমার। যিনি একজন ব্রাজিলীয় পেশাদার ফুটবলার।তিনি ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন এবং ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে একজন ফরোয়ার্ড বা উইঙ্গার হিসেবে খেলেন।তার ত্বরণ, গতি, বল কাটানো, সম্পূর্ণতা এবং উভয় পায়ের ক্ষমতার জন্য তিনি সর্বাধিক আলোচিত। তার খেলার প্রক্রিয়া তাকে ইতিবাচক সমালোচনার প্রশংসীও করেছে এবং ভক্তদের আকৃষ্ট করেছে। তার খেলার জন্যে তাকে সাবেক ব্রাজিলীয় ফুটবলার পেলের তার সম্পর্কে, বলেন “একজন অসাধারণ খেলোয়াড়”।

Image result for neymar jr 2019 hd pictur"

২০০৯ সালে নেইমার জাপানের বিপক্ষে উদ্বোধনকালীন ম্যাচে খেলেন এবং সেখানে তার অসাধারণ পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেন যার ফলে প্রাক্তন ব্রাজিলীয় ফুটবল খেলোয়াড় পেলে এবং রোমারিও তৎকালীন ব্রাজিল জাতীয় দলের কোচ দুঙ্গাকে ঘন ঘন চাপ দিতে থাকেন নেইমারকে ২০১০ বিশ্বকাপ স্কয়াডে রাখার জন্যে।কিন্তু তখন তাকে নেয়া হয়নি। পরবর্তীতে ২৬-ই জুলাই ২০১০ সালে নেইমারকে সর্বপ্রথম ব্রাজিল মূল দলে খেলার জন্য ডাকা হয় নতুন কোচ মানো মেনেজেস কর্তৃক নিউ জার্সির ইস্ট রাদারফোর্ডে একটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে। ১০-ই আগস্ট মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি ওই ম্যাচে ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক করেন এবং সেখানে থাকে ব্রাজিলের ১১ নম্বর জার্সি প্রদান করা হয়।

Image result for neymar jr 2019 hd pictur"

২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি বার্সিলোনার লা লিগার বিভাগ জন্যে খেলেন যেখানে মেসিও ছিল। ফুটবলপ্রেমীদের বেশির ভাগ দ্বন্দ্বের অথবা ভালোবাসার মূল কেন্দ্রক্ষেত্র বলা যায় মেসি এবং নেইমার। তাদের নিয়ে ব্রাজিল আর্জেন্টিনাতে যতোটা দ্বন্দ্ব লাগে তার থেকে অধিক দেখা যায় অন্যান্য দেশে। অথচ তাদের দুজনের মধ্যে কিন্তু অনেক ভালো বন্ধুত্ব দেখা যায় ।তারা দুইজন এক সাথে বার্সেলনায় খেলেছে এবং জিতেছেও।

Image result for neymar jr 2019 hd pictur"

নেইমার ৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২ সালে মগি দাস ক্রুজেস, ব্রাজিলে জন্মগ্রহণ করেন। যদিও তিনি জুনিওর নেইমার বলে বেশি পরিচিত কিন্তু তার আসল নাম  নেইমার দা সিল্ভা স্যান্তোস জুনিয়র ,তার পিতার নামের অনুসারে নাম পান, যিনি একজন প্রাক্তন ফুটবলার এবং তিনি নেইমারের পরামর্শক হিসেবে কাজ করছেন। ২০০৩ সালে সান্তস ফুটবল ক্লাব খেলায় চুক্তিবদ্ধ করেন নেইমারকে। নেইমার খুব কম বয়সেই ফুটবল খেলা আরম্ভ করেন। খুব অল্প সময়েই তিনি সান্তস ফুটবল ক্লাব কর্তৃপক্ষের নজরে আসেন।

Image result for neymar jr and his father childhood"

নেইমার ২০১১ সালে আগস্টে মাত্র ১৯ বছর বয়সে তিনি পুত্র সন্তানের বাবা হন। তার এবং ক্যারোলিনা দান্তাস এর পুত্র সন্তানটির নাম দাভি লুকা। যদিও ক্যারোলিনা দান্তাস সাথে তার কোনো সম্পর্ক নেই তারা ভালো বন্ধু কেবমাত্র। কিন্তু কিন্তু সময়ের জন্যে ব্রাজিলিয়ান মডেল ব্রুনা মারকুইজিনের সাথে সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন যা পরবর্তীতে ২০১৫ সালে বিচ্ছেদ ঘটে।নেইমার একজন খ্রিষ্ট ধর্ম বিশ্বাসী ।রিকার্ডো কাকাকে তিনি ধর্মীয় গুরু মানেন। নিজের বেতনের ১০ শতাংশ চার্চেও দান করেন ।

Image result for neymar jr and his father childhood"

 

২২৭-ই মার্চ ২০১১, তিনি আমিরাত স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ব্রাজিলকে ২-০ গোলে জয় এনে দেন। ম্যাচ চলাকালীন তাকে উদ্দেশ্য করে মাঠে কলা নিক্ষেপ করা হয় যখন তিনি পেনাল্টি থেকে তার দ্বিতীয় গোলটি করেন। তিনি স্কটল্যান্ড সমর্থকদের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযগ আনেন। অন্যদিকে স্কটিশ অফিসিয়ালরা এই ব্যাপারে ব্যাখ্যা করে বলেন যে, একা নেইমারকে মাঠে সমর্থকরা অবজ্ঞা করে কারণ তিনি ইঞ্জুরির নাটক করেন। যদিও এসব পরবর্তীতে ভুল প্রমাণিত হয়েছে। এসব সমালোচনা নিয়ে তিনি তার লক্ষ্যে দিক আগিয়ে যায়। ২০১৭ সাল বার্সেলোনা থেকে আসার পর এখন অবদি তিনি প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন হয়ে খেলছে। ২০১৯ সালের ৪টি ম্যাচের মধ্যে তিনি ১টি গোল করেছেন।

 

তারকালয়/০৫/১১/১৯/রিয়া

Previous ArticleNext Article