বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

ভারতীয় চলচ্চিত্র পানিপথ বক্সঅফিসে আয় করতে পেরেছে কি!!!

২০১৯ এ ৬ ডিসেম্বর আশিতস গোয়ারিকার পরিচালিত চলচ্চিত্র পানিপথ মুক্তি পায়। চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন সঞ্জয় দত্ত, অর্জুন কাপুর, কৃতি সানোন ও অনেকে। চলচ্চিত্রের পরিচালক হলো আশিতস গোয়ারিকার, প্রযোজক হলো সুনিতা গোয়ারীকার ও রোহিত সালেটকার। ১৭৬১ সালের ১৪ জানুয়ারি সংগঠিত পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধ নিয়ে এ সিনেমা নির্মিত হয়েছে।বলিউডের অনেক তারকা এটির প্রশংসা করেছেন। তবে আপত্তি জানিয়েছে আফগানিস্তান।  যুদ্ধটি হয়েছিল মারাঠা সাম্রাজ্য ও আফগানিস্তানের রাজা আহমদ শাহ আবদালীর সঙ্গে। যুদ্ধে মারাঠা যোদ্ধাদের পরাজিত করেন আবদালী। পানিপথ ছবিতে আহমদ শাহ আবদালী চরিত্রে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় বলিউড অভিনয়শিল্পী সঞ্জয় দত্ত।    সিনেমাটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে ৯০ কোটি। চলচ্চিত্রটি ৪ দিনের মধ্যে ১৭.৭৮ কোটি টাকা এবং ৭ দিনের মধ্যে  আয় করেছে ৩৭.৬৯ কোটি টাকা ।  বর্তমানে বাণিজ্যিকভাবে তেমন সফল অর্জন করতে পারেনি।

Image result for পানিপাত

উক্ত চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্র সদাশিব রাও বাও, পারবতি বাই, আহমেদ-শা-আবদালি।১৪ জানুয়ারি ১৭৬১ সালে দিল্লির ৯৭ কিলোমিটার উত্তরে  যুদ্ধটি মারাঠা বাহিনীর সাথে আবদালি মধ্যে ভয়ঙ্কর রুপে সংঘটিত হয়। যুদ্ধটি ১৮ শতকের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে একক দিনে মৃত্যুর বৃহত্তম সংখ্যা ছিল বলে জানা যায়। যুদ্ধের সময়ে এবং পরে ১০০,০০০ এরও বেশি মারাঠা (সৈন্য ও অযোদ্ধা) ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল।”  বলিউডের অন্যতম আলোচিত ছবি ‘পদ্মাবত’তে আলাউদ্দিন খিলজীকে যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছিল তাতে আপত্তি জানিয়েছিলেন ঐতিহাসিকরা। ‘পানিপথ’ ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন কৃতি শ্যানন ও অর্জুন কাপুর। ছবিটির সঙ্গে সঞ্জয় লীলা বানশালি পরিচালিত ‘বাজিরাও মাস্তানি’ ও ‘পদ্মাবত’র সঙ্গে মিল থাকাতেও বিদ্রুপ হচ্ছে। কিন্তু পানিপথ চলচ্চিত্রে ঐতিহাসিক ঘটনা পেশ্বা বাজিরাও এর ২০ বছর পর হয়েছিল।Related image

সারসংক্ষেপ;  সদাশিব রাও বাও এর সাথে পারবতি  বাইয়ের বিয়ে হয়। পানিপথ নামক স্থানে মারাঠাদের সাথে আফগানিস্থানের সম্রাট আহমেদ-শা-আবদালির মধ্যে সংঘটিত হয়। আফগানিস্তানে রাজা আহমদ শাহ আবদালি ভারতে শাসন করতে চায়। মারাঠা পেশ্বা নানাসাহেবের হুকুমে সদাশিব রাও বাও কে আবদালি বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে যায়। সেই যুদ্ধে অসংখ্য মারাঠা মারা যায় । সেই যুদ্ধ থেকে মারাঠা অনেক যোদ্ধা সহিদ হয় । সদাশিব রাও বাও শেষে মারা যায়।

Related image

 আবদালী চরিত্রে সঞ্জয় দত্তকে ভয়ানক ও নিষ্ঠুর হিসেবে দেখানো হয়েছে। ছবিতে নিজের লুক শেয়ার করে সঞ্জয় নিজেও টুইট করেছেন, আবদালীর ছায়া যেখানে পড়ে সেখানের মৃত্যু আঘাত হানে। ছবিটি প্রসঙ্গে ভারতে আফগানিস্তানের সাবেক হাইকমিশনার ড. শহিদা আবদালি সরাসরি সঞ্জয়ের নাম করে টুইট করেছেন। দুই দেশের ইতিহাস বর্ণনায় আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্কের বিষয়টিও সংশ্লিষ্টদের মাথায় রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। ভারতের বর্তমান আফগান রাষ্ট্রদূত তাহির কাদিরিও বলেছেন, আমরা ভারতীয় কর্মকর্তাদের কাছে আফগানদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছি। Image result for পানিপাত

তারকালয়/১৩/১২/১৯ রিয়া

Previous ArticleNext Article