সাজগোজ

শীতে ত্বক সুস্থ রাখার উপায়!! 

শীতে রুক্ষতা ত্বকের বারটা বেজে যায়। ত্বক হয়ে পড়ে মলিন রুক্ষ ও শুষ্ক। অনেকের ত্বক ড্রাই হয়ে ফাটা শুরু করে। অনেকের এই ফাটা যায়গা থেকে রক্ত বের হতে থাকে। ত্বকের এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে এখুনি ত্বকের সঠিক পরিচর্যা নিলে ত্বকের সুস্থতা বজায় রাখতে পারবেন। সময় মত ত্বকের যত্ন না নিলে ত্বকের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি হতে পারে। কিভাবে করবেন ত্বকের যত্ন? 
 
 
 
 
শীতে শুষ্ক ত্বকে সাবান ব্যবহার না করা 
 
শীতে অনেকের ত্বকে সাবান ব্যবহারে সমস্যা দেখা দেয়। তারা গোসলের সময় সাবান ব্যবহারে বিরত থাকুন। সেক্ষেত্রে একটা সুতি কাপড় দিয়ে হালকা করে তেল মুছে নিতে পারেন। শীতে সাবান ব্যবহার করলে সাবান আপনার ত্বকের তেল শুষে নেয় যার ফলে আপনার ত্বক আরও বেশি শুষ্ক হয়ে পরে। 
 
 
 
 
 
ময়শ্চারাইজিং সাবান ব্যবহার করা  
 
বিভিন্ন গ্রোসারি শপে অনেক রকমের ময়শ্চারাইজিং সাবান বা বাথ পাওয়া যায়। সেটা সাবান ও ময়শ্চারাইজার দুটোরই কাজ করে। 
 
 
 
 
 
শীতে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করা 
 
 
শীতের রোদ কার না পছন্দ! কিন্তু তা ত্বকের জন্য মোটেও উপযোগী নয় বরং ক্ষতিকর। তাই এ সময় অবশ্যই নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। সানস্ক্রিন এসপিএফ ৩০ এর বেশি দেখে কিনবেন। 
 
 
 
 
 
ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করা 
 
ত্বকে নিয়মিত ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করা। ত্বকে সানস্ক্রিন ব্যবহার করার পাশাপাশি ত্বকের যে কোন ভালো ব্র্যান্ডের লোশনসানস্ক্রিন অথবা কোল্ড ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। সমস্যা হয় শুষ্ক ও তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে। যাদের শুষ্ক ত্বক তারা গায়ে তেল লাগানোর পাশাপাশি মুখেও তেল লাগাতে পারেন। অবশ্যই গোসলের আগে লাগিয়ে ১ ঘন্টা পর গোসল সেড়ে নিন এতে আপনার ত্বক শুষ্ক হবে না। 
 
 

 

 
ফাটা স্থানে ভেসলিন ব্যবহার করা
 
 
যাদের ত্বক ইতিমধ্যে ফেটে চৌচিড় হয়ে গেছে তারা সেই সব স্থানে ভেসলিন ব্যবহার করতে পারেন। বিশেষ করে পা গোড়ালি ফাটা। ঘুমানোর আগে সেই যায়গা গরম পানির মধ্যে ভিজিয়ে রেখে ঝামা দিয়ে ঘষে এরপর ভালো করে মুছে ভেসলিন লাগিয়ে মোজা পরে নিন। 
 
 
তারকালয়/০২/০১/১৯/রুপা 

Previous ArticleNext Article